বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
135 জন দেখেছেন
"ইবাদত" বিভাগে করেছেন (13 পয়েন্ট)

2 উত্তর

0 টি পছন্দ
করেছেন (245 পয়েন্ট)
সিজদা দেওয়ার নিয়ম: রুকু থেকে দাড়িয়ে সোজা হয়ে সামিআল্লাহুলিমান হামিদা বলে রাব্বানাকাল হামদ... বলার পর প্রথমে দুই হাটু রাখতে হবে, এরপর দুই হাত, এরপরে নাক এবং সবশেষে কপাল স্পর্শ করাতে হবে । সিজদা থেকে উঠার সময় বিপরীতভাবে আগে কপাল তুলতে হবে, এরপর নাক এবং দুই হাত, দুই হাটু তুলে সোজা হয়ে দাড়িয়ে পরবর্তী রাকাত আদায় করতে হবে।
করেছেন (4,777 পয়েন্ট)
দয়া করে রেফারেন্স যোগ করুন।
0 টি পছন্দ
করেছেন (5,852 পয়েন্ট)
রুকু থেকে মাথা উঠানোর পর পুরপুরি সোজা হয়ে দাঁড়িয়ে " রাব্বানা ওয়া লাকাল হামদ" বলতে হবে।[বুখারী- ৭৫৭]

সাজদায় যেতে মাটিতে হাঁটু রাখার পুর্বে দুই হাত রাখতে হবে। [আবূ দাউদ / ৮৪০]

সাতটি অঙ্গ দ্বারা সাজদা কতরতে হবে। যথা- কপাল,(নাক অবশ্যই মাটিতে স্পর্শ করতে হবে]„ দুই হাত„দুই হাঁটু, এবং দুই পায়ের আঙ্গুল সমূহ দ্বারা,(এখানে উল্লেখিত সকল অঙ্গই জমিন থেকে বিচ্ছিন্ন রাখা জায়েজ নয়) [বুখারী- ৭৭২]

সাজদায় আঙ্গলো যথাযথ স্থানে রাখতে হবে-। যেমন- যেমন হাত দুই হাতের তালু মাটিতে রাখা,দুই বাহু প্রসারিত করে কুনুই থেকে পাজর।পেট থেকে উরু পৃথক রাখতে হবে। এবং দুই হাতের মাঝখানে চেহারা রাখতে হবে। [ বুখারী- ৭৬৭]

হাঁটু পৃথক রাখতে হবে। পায়ের আঙ্গুলের মাথা কিবলা মুখি হবে এবং পায়ের গোড়ালি দ্বয় মিলিয়ে রাখতে হবে।[ইবন খুযাইমাহ, হাকিম]

কুরুরের ন্যায়  দুই হাত মাটিতে বিছিয়ে সাজদা করা নিষেধ [ বুখারী- ৫০৫]

সাজদা করার সময় দুই হাত এমন ভাবে রাখতে হবে যাতে ছগলের বাচ্চা তার ভেতর দিয়ে মানে বুকের নিচ দিয়ে যেতে পারে।[ মুসলিম -- ৮৮০]

সাজদায় সুবাহান রাব্বীইয়াল আলা বলতে হয়।[মুসলিম / ১৬৮৪]

তারপর আল্লাহ আকবার বলে মাথা উঠাতে হবে।
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

2 টি উত্তর
30 নভেম্বর 2018 "ইবাদত" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Md Robiul kb (11 পয়েন্ট)
2 টি উত্তর
06 জুন 2018 "ইবাদত" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Moshiur45 (12 পয়েন্ট)
3 টি উত্তর

304,613 টি প্রশ্ন

393,336 টি উত্তর

119,677 টি মন্তব্য

168,883 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...