বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
182 জন দেখেছেন
"সিয়াম" বিভাগে করেছেন (11 পয়েন্ট)

3 উত্তর

0 টি পছন্দ
করেছেন (2,991 পয়েন্ট)
আয়িশাহ (রা) বলেন " সায়িম অবস্থায় নবী (সা) তাঁর কোন কোন স্ত্রীকে চুমু খেতেন।" (এ কথা বলে) আয়িশাহ (রা) হেসে দিলেন। (সহিহুল বুখারী ১৯২৭,১৯২৮ । ইসলামিক ফাউন্ডেশনের বুখারী ১৮০২)
0 টি পছন্দ
করেছেন (746 পয়েন্ট)

হ্যাঁ; এটি জায়েয। বরঞ্চ স্বামীর জন্য সহবাস ব্যতীত বা বীর্যপাত ব্যতীত নিজের স্ত্রীকে উপভোগ করা জায়েয আছে।


ইমাম বুখারি (১৯২৭) ও মুসলিম (১১০৬) আয়েশা (রাঃ) থেকে বর্ণনা করেন যে, তিনি বলেন: নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম রোযা রেখে স্ত্রীকে চুম্বন করতেন; স্ত্রীর সাথে মুবাশারা (আলিঙ্গন) করতেন। এবং তিনি ছিলেন তাঁর যৌনাকাঙ্ক্ষাকে নিয়ন্ত্রণে সবচেয়ে সক্ষম ব্যক্তি।

0 টি পছন্দ
করেছেন (7,394 পয়েন্ট)
নিজেকে নিয়ন্ত্রণ রাখতে পারলে রোযাদার ব্যক্তির চুমু দেয়া যায়েজ। নতুবা যায়েজ নয়। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম রোযারত অবস্থায় স্ত্রীকে চুমা দিতেন। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম যেমন নিজেকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারতেন, তোমাদের মধ্যে কে নিজের উপর তদ্রূপ নিয়ন্ত্রণ ক্ষমতা রাখে! সুনানে ইবনে মাজাহ। হাদিস নম্বরঃ ১৬৮৪ হাদিসের মানঃ সহিহ।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
1 উত্তর
04 জুন 2017 "যৌন" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন JIARUL HOQUE (11 পয়েন্ট)

306,878 টি প্রশ্ন

395,770 টি উত্তর

120,885 টি মন্তব্য

170,037 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...