বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
304 জন দেখেছেন
"ইসলাম" বিভাগে করেছেন (19 পয়েন্ট)

উদাহরন  কেউ চুরি করে ৫বছর জেলে থাকল।  বা কাউকে হত্যার জন্য ফাসি হল তার।  এই পাপের শাস্তি তো দুনিয়াতে পেয়ে গেল,  কিন্তু আখিরাতে কি তার আবার বিচার হবে?  সাজা ভোগ করবে? 

2 উত্তর

+2 টি পছন্দ
করেছেন (8,152 পয়েন্ট)

আল্লাহ তালার এরশাদ-﴿ ۞قُلۡ تَعَالَوۡاْ أَتۡلُ مَا حَرَّمَ رَبُّكُمۡ عَلَيۡكُمۡۖ أَلَّا تُشۡرِكُواْ بِهِۦ شَيۡ‍ٔٗاۖ وَبِٱلۡوَٰلِدَيۡنِ إِحۡسَٰنٗاۖ وَلَا تَقۡتُلُوٓاْ أَوۡلَٰدَكُم مِّنۡ إِمۡلَٰقٖ نَّحۡنُ نَرۡزُقُكُمۡ وَإِيَّاهُمۡۖ وَلَا تَقۡرَبُواْ ٱلۡفَوَٰحِشَ مَا ظَهَرَ مِنۡهَا وَمَا بَطَنَۖ وَلَا تَقۡتُلُواْ ٱلنَّفۡسَ ٱلَّتِي حَرَّمَ ٱللَّهُ إِلَّا بِٱلۡحَقِّۚ ذَٰلِكُمۡ وَصَّىٰكُم بِهِۦ لَعَلَّكُمۡ تَعۡقِلُونَ ١٥١ ﴾ [الانعام: ١٥١]


‘বল, “এসো, তোমাদের ওপর তোমাদের রব যা হারাম করেছেন, তা তিলাওয়াত করি যে, তোমরা তার সাথে কোন কিছুকে শরীক করবে না এবং মা-বাবার প্রতি ইহসান করবে আর দারিদ্র্যের কারণে তোমাদের সন্তানদেরকে হত্যা করবে না। আমিই তোমাদেরকে রিয্ক দেই এবং তাদেরকেও। আর অশ্লীল কাজের নিকটবর্তী হবে না- তা থেকে যা প্রকাশ পায় এবং যা গোপন থাকে। আর বৈধ কারণ ছাড়া তোমরা সেই প্রাণকে হত্যা করো না, আল্লাহ যা হারাম করেছেন। এগুলো আল্লাহ তোমাদেরকে নির্দেশ দিয়েছেন, যাতে তোমরা বুঝতে পার।”’ {সূরা আল-আন‘আম, আয়াত : ১৫১}


তাফসীরকার বাগবী (রহ.) বলেন, এ আয়াতে আল্লাহ যে কোনো মুমিন ও মুসলিম রাষ্ট্রে ট্যাক্স প্রদানকারী অমুসলিম নাগরিককে অন্যায়ভাবে হত্যা হারাম ঘোষণা করেছেন। হত্যার ন্যায়সঙ্গত কারণের মধ্যে রয়েছে ইরতিদাদ তথা কোনো মুসলিমের ইসলাম ধর্মত্যাগ, কিসাস তথা হত্যার বদলে হত্যা এবং রজম তথা বিবাহিত ব্যক্তির জেনা-ব্যভিচারের দণ্ড। [মা‘আলিমুত তানযীল : ৩/২০৩]


আরেক আয়াতে আল্লাহ তা‘আলা বলেন,


﴿ وَٱلَّذِينَ لَا يَدۡعُونَ مَعَ ٱللَّهِ إِلَٰهًا ءَاخَرَ وَلَا يَقۡتُلُونَ ٱلنَّفۡسَ ٱلَّتِي حَرَّمَ ٱللَّهُ إِلَّا بِٱلۡحَقِّ وَلَا يَزۡنُونَۚ وَمَن يَفۡعَلۡ ذَٰلِكَ يَلۡقَ أَثَامٗا ٦٨ يُضَٰعَفۡ لَهُ ٱلۡعَذَابُ يَوۡمَ ٱلۡقِيَٰمَةِ وَيَخۡلُدۡ فِيهِۦ مُهَانًا ٦٩ ﴾ [الفرقان: ٦٧، ٦٨]


‘আর যারা আল্লাহর সাথে অন্য ইলাহকে ডাকে না এবং যারা আল্লাহ যে নাফ্সকে হত্যা করা নিষেধ করেছেন যথার্থ কারণ ছাড়া তাকে হত্যা করে না। আর যারা ব্যভিচার করে না। আর যে তা করবে সে আযাবপ্রাপ্ত হবে। কিয়ামতের দিন তার আযাব বর্ধিত করা হবে এবং সেখানে সে অপমানিত অবস্থায় স্থায়ী হবে।’ {সূরা আল-ফুরকান, আয়াত : ৬৮-৬৯}


কাউকে অন্যায়ভাবে হত্যা করা হলে ইসলাম তার প্রতিকারের কার্যকর ব্যবস্থা নির্দেশ করেছে। আল্লাহ তা‘আলা বলেন,


﴿ وَلَا تَقۡتُلُواْ ٱلنَّفۡسَ ٱلَّتِي حَرَّمَ ٱللَّهُ إِلَّا بِٱلۡحَقِّۗ وَمَن قُتِلَ مَظۡلُومٗا فَقَدۡ جَعَلۡنَا لِوَلِيِّهِۦ سُلۡطَٰنٗا فَلَا يُسۡرِف فِّي ٱلۡقَتۡلِۖ إِنَّهُۥ كَانَ مَنصُورٗا ٣٣ ﴾ [الاسراء: ٣٣]


‘আর তোমরা সেই নাফসকে হত্যা করো না, যা আল্লাহ হারাম করেছেন, সঙ্গত কারণ ছাড়া। যে অন্যায়ভাবে নিহত হয় আমি অবশ্যই তার অভিভাবককে ক্ষমতা দিয়েছি। সুতরাং হত্যার ব্যাপারে সে সীমালঙ্ঘন করবে না; নিশ্চয় সে হবে সাহায্যপ্রাপ্ত। {সূরা বনী ইসরাইল, আয়াত : ৩৩}


এ আয়াতে কিসাস তথা হত্যার বদলা হিসেবে হত্যার বিধানের প্রতি ইঙ্গিত করা হয়েছে। অন্য সূরায় যেটি পরিষ্কার করে বলা হয়েছে। আল্লাহ তা‘আলা যেমন বলেন,


﴿ وَكَتَبۡنَا عَلَيۡهِمۡ فِيهَآ أَنَّ ٱلنَّفۡسَ بِٱلنَّفۡسِ وَٱلۡعَيۡنَ بِٱلۡعَيۡنِ وَٱلۡأَنفَ بِٱلۡأَنفِ وَٱلۡأُذُنَ بِٱلۡأُذُنِ وَٱلسِّنَّ بِٱلسِّنِّ وَٱلۡجُرُوحَ قِصَاصٞۚ فَمَن تَصَدَّقَ بِهِۦ فَهُوَ كَفَّارَةٞ لَّهُۥۚ وَمَن لَّمۡ يَحۡكُم بِمَآ أَنزَلَ ٱللَّهُ فَأُوْلَٰٓئِكَ هُمُ ٱلظَّٰلِمُونَ ٤٥ ﴾ [المائ‍دة: ٤٥]


‘আর আমি এতে তাদের উপর অবধারিত করেছি যে, প্রাণের বিনিময়ে প্রাণ, চোখের বিনিময়ে চোখ, নাকের বিনিময়ে নাক, কানের বিনিময়ে কান ও দাঁতের বিনিময়ে দাঁত এবং জখমের বিনিময়ে সমপরিমাণ জখম। অতঃপর যে তা ক্ষমা করে দেবে, তার জন্য তা কাফ্ফারা হবে। আর আল্লাহ যা নাযিল করেছেন, তার মাধ্যমে যারা ফয়সালা করবে না, তারাই যালিম।’ {সূরা আল-মায়িদা, আয়াত : ৪৫}

দুনিয়াতে যে হত্যা করবে তাঁর শাস্তি ইহকালে আল্লাহ দেন এবং পরকালে তাঁকে শাস্তি ভোগ করতে হবে।

যদি চুরি করে কোনো ব্যক্তি ভবিষ্যতে না করার দৃঢ় অঙ্গীকার করে তাওবা করে নেয়, তবে আল্লাহ তাকে ক্ষমা করে দেবেন। পরকালের শাস্তি থেকে রেহাই দেবেন। তবে তাওবার কারণে চুরির পার্থিব সাজা মওকুফ করা হবে না।


রবিন আহমেদ দেশের বাহিরে থেকেও দেশের প্রতি অভাবনীয় টানে দেশের মানুষকে উপকার করার জন্য বেছে নিয়েছেন বিস্ময় অ্যানসারসকে। নতুন কিছু জানতে এবং অন্যকে জানাতে সুদূর ওমানে থেকেও বাংলার মানুষের প্রতি ভালোবাসার টানে তিনি বিস্ময়ের সাথে কাজ করে যাচ্ছেন এবং তিনি ওমানে ডলার/ভয়েস ব্যবসার সাথে জড়িত আছেন। বিস্ময়ের সঙ্গে রয়েছেন একজন সমন্বয়ক হিসেবে।
0 টি পছন্দ
করেছেন (7,330 পয়েন্ট)

কেন নয় অবশ্যই পাবেন।আল্লাহ শুধু আখিরাতের জন্যই পাপীর

শাস্তি দিবেন না আল্লাহ কোন কোন পাপী বান্দাকে দুনিয়াতে

থাকাকালীনও শাস্তি দিয়ে থাকেন সেটা বিভিন্ন মাধ্যমে।

তার শাস্তি মৃত্যর পরেও হবে।

মানিক রাজ জ্ঞানের জন্যই জ্ঞানকে ভালোবাসেন, জ্ঞানের প্রতি রয়েছে অতৃপ্ত তৃষ্ণা আর তাই দীর্ঘদিন যাবত ইন্টারনেটের এর সাহায্য অজানাকে জানার চেষ্টা করেন। নিজে জ্ঞান অর্জনের পাশাপাশি অন্যকে জানানো ও নিঃস্বার্থভাবে অপরকে সাহায্য করার জন্য বিস্ময় অ্যানসারসকে বেছে নিয়েছেন। বিস্ময় অ্যানসারস এর সাথে আছেন সমন্বয়ক হিসেবে।
করেছেন (19 পয়েন্ট)

কোন প্রমাণ বা সূত্র সহ উত্তর দেওয়ার অনুরোধ রইল। 

করেছেন (7,330 পয়েন্ট)

বিষয়টা একটু চিন্তা করে দেখেন সহজেই বুঝে যাবেন।

সবকিছু উত্তরের সূত্র প্রয়োগ করতে হয়না,মুখ দিয়েও হয়।

মনে করুণ, কোন একজন ব্যক্তি আপনার মোবাইলটি চিন্তাই

করে আপনাকে মারধোর করে নিয়ে কিন্তু কোন একদিন ঐব্যক্তিকে আপনি আপনার চোখের সামনে ফেলেন তাকে

ধরলেন তখন আপনি ঐব্যক্তিকে কি করবেন? 

করেছেন (7,330 পয়েন্ট)

কুরআন ও হাদিসেই বলছেন যারা দুনিয়াতে উত্তম কাজ করবে

তারা দুনিয়াতেও ভালো কাজের ফলাফল উপভোগ করবে,

পরকালেও পাবে ভালো ফলাফল।

এবং যারা দুনিয়াতে অশালীন কাজ করবে তারা দুনিয়াতেও

সেই অশালীন কাজের ফলাফল উপভোগ করবে এবং পরকালেও তার শাস্তি উপভোগ করবে।

টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
31 অক্টোবর 2016 "নিত্য ঝুট ঝামেলা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন মাহিন হোসেন (11 পয়েন্ট)
1 উত্তর

300,419 টি প্রশ্ন

388,302 টি উত্তর

117,353 টি মন্তব্য

165,808 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...