বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
155 জন দেখেছেন
"ঈমান" বিভাগে করেছেন (9 পয়েন্ট)
পরকাল যে সত্যিই আছে এটা আমার মাঝে মাঝে বিশ্বাস হয়না মনে হয় এগুলো সবই মিথ্যা। আমি এই সমস্যা গুলো থেকে কিভাবে মুক্তি পেতে পারি? এবং পরকালের প্রতি সম্পূর্ণ ঈমান আনতে পারি?
বন্ধ

3 উত্তর

0 টি পছন্দ
করেছেন (5,720 পয়েন্ট)
 
সর্বোত্তম উত্তর
সুন্দর একটি প্রশ্ন করেছেন। বর্তমানে অনেকের মনেই
এমন বিষয় ঘুরপাক খায়। এর কারন হল মানুষ বৈজ্ঞানিক সকল বিষয় যৌক্তিক বিশ্লেষণ সহকারে সচক্ষে দেখতে পায়। আর ধর্মীয় সকল বিষয় হল
বিশ্বাসের উপর নির্ভরশীল। যার অনেক কিছুই চর্ম চোখের দ্বারা দেখা সম্ভব নয়। 
এখন প্রশ্ন হল আল্লাহ যে আছে এর বাস্তবতা কী?  
এর উত্তর দুইভাবে দেওয়া যায়।  ১ যৌক্তিক, তাহল পৃথিবীর কোন কিছুই এমনিতেই হয়ে যায়না তার একটা সৃষ্টকারী প্রয়োজন আর তিনি হলেন আল্লাহ সুবহানা ওয়া তায়ালা। 
২ খবর বা সংবাদের মাধ্যমে আর তাহল আল্লাহ যে আছেন বা জান্নাত জাহান্নাম যে আছে তার ব্যপারে এমন এক ব্যক্তি সংবাদ দিয়েছেন যিনি সকলের দ্বারা স্বীকৃত সত্যবাদী।
বিজ্ঞানী বলেন আর মহাজ্ঞানী বলেন সকলের জ্ঞান এর একটা সীমাবদ্ধতা আছে। এই সীমাবদ্ধতার কারনে সে যা দেখে তার বাহিরে ভাবতে পারেনা বা জ্ঞান অর্জন করতে পারেনা। 
নাস্তিকদের ও একই অবস্থা। সে জন্য তারা আল্লাহ্‌র অস্তিত্ব অস্বীকার করে। এবং কিছু খোঁড়া যুক্তি উত্থাপন করে। সেগুলো অন্যরা শুনে বিভ্রান্তিতে পরে।

এবার আসি মূল কথায়, জান্নাত, জাহান্নাম, পরকাল, হাশর, এ সব যা আছে এ ব্যপারে সংবাদ দিয়েছে এমন এক ব্যক্তি যিনি জীবনে মিথ্যা বলেন নি। যাকে আল আমীন উপাধিতে ভূষিত করেছে তার যোগের লোকেরাই।
রাসূল সাঃ কেমন ছিলেন সে ব্যপারে জানতে হলে পড়তে হবে  রাসুল সাঃ জীবনী।
আর আল্লাহ বিভিন্ন মাধ্যমে রাসুল সাঃ কে সব জানিয়ে দিয়েছেন। যা লিপিবদ্ধ আছে কোরআন ও হাদীসে।

সর্বশেষ কথা হল যেহেতু আপনি মুসলমান সেহেতু আপনাকে কোরআন হাদীসে যা আছে তা বিশ্বাস করতেই হবে। চাই বুঝে আসুক আর না আসুক।
নাস্তিকদের কথা পড়া ও শোনা থেকে বিরত থাকুন।
ধর্মীয় বই বেশি বেশি পড়ুন। 
+1 টি পছন্দ
করেছেন (28 পয়েন্ট)
প্রথমে আপনাকে ধন্যবাদ জানাই।আপনি নিজের ইমানকে দৃড় করার জন্য এগিয়ে এসেছেন।আপনি দয়া করে প্যারাডক্সিকাল সাজিদ বইটি পড়ুন। ইনশাআল্লাহ আপনার সকল সন্দেহ দূর হবে।
0 টি পছন্দ
করেছেন (2,948 পয়েন্ট)
আপনি প্রতিদিন কোরআন শরীফ, হাদিস পড়বেন।ওয়াজ শুনবেন।আলেমের কাছে ওঠাবসা করার চেষ্টা করবেন।বেধর্মীদের কথায় কান দিবেন না।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

3 টি উত্তর

293,196 টি প্রশ্ন

379,651 টি উত্তর

114,773 টি মন্তব্য

160,874 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...