বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
188 জন দেখেছেন
"ধর্ম ও আধ্যাত্মিক বিশ্বাস" বিভাগে করেছেন (0 পয়েন্ট)

2 উত্তর

+1 টি পছন্দ
করেছেন (1,633 পয়েন্ট)
প্রথমে জেনে রাখা দরকার কুকুরের শরীর নাপাক নয়। এর শরীরে কাপড় স্পর্শ করলে বা নাক কাপড়ে লাগলে কাপড় নাপাক হবে না। তবে কুকুরের লালা নাপাক। কুকুর যদি মুখ দিয়ে জামা টেনে ধরলে যদি কাপড়ে লালা লেগে যায় তবে কাপড় নাপাক হয়ে যাবে। অন্যথায় নাপাক হবে না। এছাড়া কুকুরের শরীরে তরল নাপাক লেগে থাকলে সেক্ষেত্রেও তা স্পর্শ করলে কাপড় নাপাক হয়ে যাবে। প্রকাশ থাকে যে, শরীয়তসম্মত কারণ ছাড়া কুকুর পালা মারাত্মক গুনাহের কাজ। এ ব্যাপারে হাদীস শরীফে কঠিন ঘোষণা এসেছে। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেছেন, যে ব্যক্তি শিকার করা বা গবাদি পশু অথবা শস্যক্ষেত পাহারা দেওয়ার উদ্দেশ্য ছাড়া কুকুর পালে ঐ ব্যক্তির প্রত্যেকদিন দুই কিরাত পরিমাণ নেকি হ্রাস পায়। -সহীহ মুসলিম, হাদীস ১৫৭৫; জামে তিরমিযী, হাদীস, ১৪৮৭ আর এক হাদীসে আছে, এক কিরাত হল, উহুদ পাহাড় সমপরিমাণ। -মুসনাদে আহমদ, হাদীস ৪৬৫০ সুতরাং হাদীসে উল্লেখিত কারণ ছাড়া কুকুর পালা থেকে বিরত থাকতে হবে। আল্লাহ আপনিসহ আমাদের সবাইকে আমল করার তাওফিক দান করুন।
করেছেন (5,819 পয়েন্ট)
কুকুরের শরীর যদি ভিজা থাকে এবং সেই ভিজা অংশ
কাপড়ের যে যে জাগায় লাগবে সে জায়গা নাপাক হবে। 
0 টি পছন্দ
করেছেন (2,995 পয়েন্ট)
নাকে যদি কোনো প্রকার তরল পদার্থ থাকে তবে নাপাক হবে।
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর

299,340 টি প্রশ্ন

387,024 টি উত্তর

116,939 টি মন্তব্য

165,046 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...