বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
3,588 জন দেখেছেন
"রূপচর্চা" বিভাগে করেছেন (11 পয়েন্ট)
বন্ধ করেছেন
রিকয়েষ্ট একটাই।।।।।। আপনার টিপসটি 100% কার্যকরী হতে হবে।।এবং খুব অল্প সময়ে সারিয়ে তুলবে???
এই চিরকূট সহকারে বন্ধ করা হয়েছে : যতেষ্ট।

6 উত্তর

+1 টি পছন্দ
করেছেন (6,994 পয়েন্ট)
আসা করি এই ওষধ ব্যবহার করলে ১ মাসের মধ্যে ব্রণ কমে যাবে । আপনি বেটনিলান ট্যাবলেট ২ বেলা খাবারের পর খাবেন।  এবং সাথে রেমি স্পট ক্রিম ব্যবহার তাহলে ভালো ফলাফল পাবেন।
করেছেন (13 পয়েন্ট)
রেমি ক্রিম এ কি স্কিন পুড়ে যায় রোদে? ব্যবহার বন্ধ করলে কি কালো হয়ে যায়? এর দাম কত ?
0 টি পছন্দ
করেছেন (593 পয়েন্ট)
সম্পাদিত করেছেন
আপনি “ডিউ“ নামের ক্রিমটা লাগান ৷ এটা পাকিস্তানের ব্রান্ড ৷ ১ সপ্তাহে ফল পাবেন ৷
তবে লাগান বন্ধ করলে রোদে গেলে আপনার স্কিন পুড়ে কালো হয়ে যেতেও পারে ৷
দাম খুলনায় কোথাও ৪৬০ থেকে ৫২০  পর্যন্ত ৷ চাহিদা প্রচুর তাই দাম এত চড়া ৷ দাম কম বেশী হতে পারে ৷
করেছেন (120 পয়েন্ট)
ক্রিমটার দাম কত হতে পারে একটু বলুন?
0 টি পছন্দ
করেছেন (2,559 পয়েন্ট)
প্রাকৃতিক মধু একটি
প্রাকৃতিক
অ্যান্টিসেপটিক।
ব্রণের প্রকোপ
কমাতে ও দাগ দূর করতে এর জুড়ি
নেই। মুখ ভালো করে পরিষ্কার
করে নিন খুব
হাল্কা ফেসওয়াশ দিয়ে। ত্বকের
জন্য রাসায়নিক পদার্থ ব্যবহার
করার চাইতে অনেক ভালো
প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহার করা।
আর ত্বকের কালচে দাগ
দূর করতে মধু ব্যবহার করা যায়।
প্রতিরাতে তুলার নরম বল
নিমপাতা সেদ্ধ পানিতে
ভিজিয়ে মুখে লাগাতে হবে।
এতে ব্রণ, ক্ষত চিহ্ন, মুখের কালো
দাগ দূর হবে।
গরম মশলার একটি উপাদান লবঙ্গ।
এটি ব্রণ দূর করার পাশাপাশি দূর
করে ব্রণের দাগও।
ব্রণের উপর লবঙ্গ বাটা ২০ থেকে
২৫ মিনিট লাগিয়ে পরিষ্কার
পানি
দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে ব্রণের
ক্ষত
স্থানে দাগ হবে না। সপ্তাহে
একবার
লবঙ্গ বাটা ত্বকে লাগালে
ত্বকে ব্রণ
উঠবে না। এছাড়া, চন্দনের গুঁড়ার
সঙ্গে লবঙ্গ বাটা লাগালে
ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা দূর হয়।
প্রতিরাতে ভালো ভাবে মুখ
ধূয়ে
Betnovate - N ক্রিম একটু করে দাগের
উপর লাগাবেনI ৭ দিনের মাঝে
দাগ হালকা হয়ে চলে যাবে,
গেরান্টি দিয়ে বলছি। একটা
ব্যপার মনে রাখতে হবে শুধু রাতে
ব্যবহার করবেন। sun light এ দিলে
সমস্যা
হবে ।
0 টি পছন্দ
করেছেন (40 পয়েন্ট)
Betnovet_N Crime ভাল  হবে কারন এই ক্রিম আমার একটা ফ্রেন্ড ব্যবহার করে।ভাল ফলাফল পাবেন।
করেছেন (13 পয়েন্ট)

এই ক্রিম ব্যবহার ছেড়ে দিলে কি আগের মতো হয়ে যায়? দাগ যাবে?

0 টি পছন্দ
করেছেন (461 পয়েন্ট)
Almas pearl cream টি ব্যাবহার করুন|
0 টি পছন্দ
করেছেন (8,832 পয়েন্ট)
মুখের ব্রণ ও কালো দাগ দুর করতে করনীয় পেঁয়াজ : মুখের ব্রণ ও কালো পেঁয়াজের কথা শুনে অবাক হচ্ছেন? এখনি জেনে নিন, বয়স জনিত কালো ছোপ দূর করতে পেঁয়াজ দারুণ কার্যকরী। একটা স্লাইস নিয়ে আক্রান্ত স্থানে ঘষুন ৫ মিনিট। তারপর ধুয়ে ফেলুন। ভালো ফল পেতে রোজ ব্যবহার করুন। লেবু : লেবু ত্বকের কালো দাগ ছোপ দূর করতে অত্যন্ত কার্যকরী একটি উপাদান। তুলোর সাথে লেবুর রস নিন, তারপর কালো দাগে ৫ মিনিট ঘষে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি সপ্তাহে ৩/৪ বার ব্যবহারে উপকার পাবেন। তবে মুখে বা শরীরের কোথাও লেবু লাগাবার পর সরাসরি সূর্যের আলোতে যাবেন ন্রিতি পেঁপে : পাকা পেঁপে কালো দাগ দূর করার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ আরেকটি উপাদান।পাকা এক টুকরো পেঁপে নিয়ে আক্রান্ত স্থানে ভালো করে ঘষুন। আধা ঘণ্টা রাখুন, তারপর পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। সপ্তাহে ৩/৪ বার করুন। পেঁপেতে থাকা প্যাপিন মরা কোষ দূর করে ত্বকের রঙ উজ্জ্বল করে তোলে। অ্যালোভেরা : কেবল ব্রণ কমাতেই নয়, ত্বকের কালো দাগছোপ দূর করতেও অ্যালোভেরা অত্যন্ত কার্যকরী একটি উপাদান। অ্যালোভেরা জেল বের করে আক্রান্ত স্থানে মাখুন আলতো হাতে। এমন ভাবে ম্যাসাজ করুন যেন অ্যালোভেরা জেল ত্বক একদম শুষে নেয়। ঘণ্টা খানেক ত্বকে রাখার পর ধুয়ে ফেলতে পারেন। কলা ও লেবুর মাস্ক : পাকা কলা ও লেবু মিশিয়ে (একটা কলা ও একটা লেবু অনুপাতে) মসৃণ পেস্ট তৈরি করুন। এই পেস্ট মুখে, গলায়, হাতে, পায়ে যে কোন জায়গায় ব্যবহার করতে পারেন। রোজ লাগান কালো দাগে, ১৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। দারুণ কাজে দেবে। দেখুন, নিয়মিত ব্যবহারে ত্বক কতো মসৃন, সুন্দর ও লাবণ্যময় হয়ে গেছে।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

2 টি উত্তর
04 অগাস্ট 2015 "রূপচর্চা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Rabbe khan (42 পয়েন্ট)

332,409 টি প্রশ্ন

423,276 টি উত্তর

131,523 টি মন্তব্য

181,350 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...