বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
526 জন দেখেছেন
29 জুন 2015 "ফাতাওয়া-আরকানুল-ইসলাম" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন (101 পয়েন্ট)
ইসলামী ব্যাংক গুলো কিস্তিতে কার লোন যাযেজ বলছে। কিভাবে জায়েজ হতে পারে? দলিল সহ বিস্তারিত জানতে চাই। দয়া করে এ বিষয়ে বিষদ জানাশুনা ব্যক্তি/প্রতিষ্ঠান হতে উত্তর আশা করছি।

3 উত্তর

0 টি পছন্দ
08 ডিসেম্বর 2015 উত্তর প্রদান করেছেন (8,648 পয়েন্ট)

নির্দিষ্ট হারে সুদ হারাম তবে লভ্যাংশ হালাল। যদি কোন মুলধনের উপর নির্দিষ্ট হারে লভ্যাংশ দিতে কাউকে বাধ্য করা হয় তাহলে সেটা হারাম কিন্তু যদি ব্যবসার লাভ/লস অনুসারে লাভ/লস উভয়ই প্রদান করা হয় তাহলে সেটা হালাল। এখন যদি অাপনি ব্যক্তিগত গাড়ী কেনার জন্য লোন নেন সেটা বিলাসী পণ্য তাই এক্ষেত্রে নির্দিষ্ট হারে সুদ দিলে হারাম হবে না কিন্তু যদি ব্যবসা করার জন্য লোন নিয়ে গাড়ী কেনেন তাহলে সেটার উপর নির্দিষ্ট হারে শুধুমাত্র লভ্যাংশ প্রদানে বাধ্য হন তাহলে সেটা হারাম হবে। সকল ব্যাংকগুলো সরকারের অনুমোদন সাপেক্ষে পরিচালিত হয় তাই তাদের ব্যাপারে সরকারের ব্যক্তিরাই অাল্লাহর কাছে জবাব দিবেন। অামরা চাইলেও ব্যাংকিং সিস্টেমকে পরিহার করতে পারব না কারন অামরা সরকারের সকল নিয়ম মানতে বাধ্য, এক্ষেত্রে সরকারী কোন নিয়মের জন্য যদি অামাদের ছোট-খাট অনিয়ম সহ্য করতে হয় অাল্লাহর কাছে তার জবাব সরকার দিবেন। 

মিলন আহাম্মেদ দীর্ঘ দিন যাবত তথ্য-প্রযুক্তি পেশায় নিয়োজিত। এছাড়াও সৌখিন সাংবাদিকতা, রাজনৈতিক বিশ্লেষন এবং সামাজিক সচেতনতামুলক কর্মকান্ডে জড়িত। যে কোন বিষয়ে অাগ্রহী আর প্রচন্ড ভ্রমন পিপাসু, দেশের বিভিন্ন স্থানসহ এপর্যন্ত ৬ টা দেশে ভ্রমনের অভিজ্ঞতা লাভ করেছেন। যে কোন বিষয় একটু ভিন্ন দৃষ্টিকোন থেকে চিন্তা করতে পছন্দ করেন।
0 টি পছন্দ
08 ডিসেম্বর 2015 উত্তর প্রদান করেছেন (8,332 পয়েন্ট)
মোটেই যায়েজ নয়,এরা তাদের নিজ সারথের জন্য বলেছে,
• হে বিশ্বাসীগণ! তোমরা চক্রবৃদ্ধি হারে সুদ
খেয়ো না এবং আল্লাহকে ভয় কর। যাতে তোমরা
সাফল্য লাভ করতে পার। (সুরা আলে ইমরান-১৩০)
• যারা সুদ খায় তারা ( কেয়ামতের দিন ) সে
ব্যক্তির মত দাঁড়াবে, যাকে শয়তান আপন স্পর্শ
দিয়ে মোহাবিষ্ট করে দেয়। তাদের এ অবস্হার
কারণ, তারা বলে বেড়াতোঃ ব্যবসা তো সুদের
মতই। অথচ আল্লাহ ব্যবসাকে হালাল আর সুদকে
হারাম করেছেন।(সূরা আল বাকারা- ২৭৫)
• আল্লাহ তা’আলা সুদকে নিশ্চিহ্ন করেন এবং দান
খয়রাতকে বর্ধিত করেন। আল্লাহ পছন্দ করেন না
কোন অবিশ্বাসী পাপীকে। ( সূরা আল বাকারা -
২৭৬, আশাকরি বুঝতে পেরেছেন,১ম হাদিসের মাধ্যমে।
07 জানুয়ারি মন্তব্য করা হয়েছে করেছেন (11 পয়েন্ট)
১ম হাদিস তো নাই!!
–1 টি পছন্দ
09 সেপ্টেম্বর 2015 উত্তর প্রদান করেছেন (-7 পয়েন্ট)
ভাই, লোন যদি আপনি নেন তো আপনার ঐ লোন কম্পানিকে ইন্টারেস্ট অর্থাৎ সুদ দিতে হবে.ইসলামে সুদ দেয়া ও খাওয়া দুটোই হারাম.তাই এই লোন যায়েজ না.
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

2 টি উত্তর

305,206 টি প্রশ্ন

393,983 টি উত্তর

119,974 টি মন্তব্য

169,177 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...