বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
6,088 জন দেখেছেন
"ইসলাম" বিভাগে করেছেন (112 পয়েন্ট)
ইসলামে বিবাহ করা ফরজ সুন্নত ও নফলও আছে। এখন প্রশ্ন হল কোন বিবাহ ফরজ? কোন বিবাহ ছুন্নত? কোন বিবাহ নফল?

এই প্রশ্নর উত্তরটা কি খুলে বলবেন

2 উত্তর

0 টি পছন্দ
করেছেন (16 পয়েন্ট)
যদি কোন পুরুষ বিবাহ করলে তার স্ত্রীর ভরণ-পোষন সহ যাবতীয় সকল চাহিদা পুরণ করতে সক্ষম হয়, এবং সে যদি বিবাহ না করে তাহলে সে অপকর্মে লিপ্ত হবে এটা যদি নিশ্চিত হয় তাহলে তার জন্য বিবাহ করা ফরজ

আর যদি কোন পুরুষ বিবাহ করলে তার স্ত্রীর ভরণ-পোষন সহ যাবতীয় সকল চাহিদা পুরণ করতে সক্ষম হয়, এবং সে যদি বিবাহ না করে তাহলে সে অপকর্মে লিপ্ত হবেনা বলে নিশ্চিত হয় তাহলে তার জন্য বিবাহ করা সুন্নত

আমাদের হানাফী মাজহাবে নফল বিবাহ নেই ধরলে সব বিবাহই নফল তবে নফল বিবাহ শাফেয়ী মাজহাবে আছে

বিস্তারিত উত্তরের জন্য দু:ক্ষিত আমি লোখায় খূবই কাচা তাই এর চাইতে সংক্ষেপ উত্তর বানাতে পারলাম না
করেছেন (15,862 পয়েন্ট)
আপনার উত্তরের জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

আপনি আপনার ইচ্ছে অনুযায়ী উত্তর সংক্ষেপ বা বর্ধিত করতে পারেন। আপনি ইচ্ছে করলে এই উত্তরটি সম্পাদনা করে বিস্তারিত ভাবে উত্তর দিতে পারেন। বিস্ময় অ্যানসারস উত্তরে ২ বর্ণ থেকে ৯০,০০০ বর্ণ পর্যন্ত অনুমোদন করে।

 

আমাদের সাথেই থাকুন।
0 টি পছন্দ
করেছেন (31 পয়েন্ট)

ইসলামের বিশেষজ্ঞ বৃন্দ বিবাহের নানান রকম প্রকারভেদ করেছেন। তবে বহুল প্রচলিত স্তরবিন্যাস হলো-

হারাম বিবাহ-  যদি কোনও পুরুষ কোন নারীকে নির্যাতনের উদ্দেশ্যে, যৌতুকের উদ্দেশ্যে কিংবা লাঞ্ছিত করার বা সম্পত্তির উদ্দেশ্যে বিয়ে করতে চায় সে বিয়ে হারাম বলে পরিগণিত হবে।

মাকরূহ বিবাহ- যে ব্যক্তি আর্থিকভাবে সক্ষম কিন্তু শারীরিকভাবে অক্ষম তাঁর জন্য বিবাহ করা মাকরুহ, তদ্রুপ যে শারীরিকভাবে সক্ষম কিন্তু আর্থিকভাবে অক্ষম তাঁর জন্যও মাকরুহ।অনেক ফিকাহবীদরা এটাকেও হারামের অন্তর্ভূক্ত বলেছেন।

সুন্নাত বা বৈধ- সে ব্যক্তি শারীরিকভাবে , আর্থিকভাবে সক্ষম, মোহরানা আদায়ে সমর্থ, স্ত্রীর ভরন-পোষনে উপযুক্ত তাঁর জন্য বিবাহ করা বৈধ ও সুন্নত।

ফরজ- যে ব্যক্তি উপরুক্ত সব ক্ষেত্রেই সক্ষম এবং এক্ষুণি বিয়ে না করলে অনৈতিকভাবে হারাম সম্পর্কে লিপ্ত হওয়ার আশঙ্কা ব্যাপক তাঁর জন্য বিয়ে করা ফরজ।

এর অন্যথায়, শারীরিক সকশমতা না থাকলে চিকিতসা করা এবং আর্থিক সক্ষমতা না থাকলে রোজা রাখার নির্দেশ এসেছে হাদীসে।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
25 সেপ্টেম্বর "ধর্ম ও আধ্যাত্মিক বিশ্বাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Rahman977 (13 পয়েন্ট)
3 টি উত্তর
24 নভেম্বর 2018 "ইসলাম" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন smsayem (55 পয়েন্ট)
3 টি উত্তর
3 টি উত্তর
03 মার্চ 2018 "ঈমান" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Md bojlu mia raj k (20 পয়েন্ট)

352,537 টি প্রশ্ন

446,618 টি উত্তর

139,930 টি মন্তব্য

188,005 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...