বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
16 জন দেখেছেন
"পবিত্রতা ও সালাত" বিভাগে করেছেন (5,117 পয়েন্ট)
সম্পাদিত করেছেন

2 উত্তর

0 টি পছন্দ
করেছেন (1,985 পয়েন্ট)

চেয়ারে বসে নামায আদায়- মূলনীতি ও কিছু বিধান

ইসলাম শাশ্বত, সত্য, স্বভাবজাত ও বাস্তববাদী ধর্ম। ইসলামের প্রতিটি বিধান অত্যন্ত যৌক্তিক ও বাস্তবমুখী। চির সুন্দর,সহজ-সরল ও সর্বোপযোগী।

ইসলামের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বিধান হচ্ছে, নামাজ। আল্লাহপাক যা নবীজী (সা.) কে মেরাজের রাতে পুরস্কার হিসেবে দিয়েছিলেন। নামাজ মহান প্রভুর দরবারে দীনতা, নিয়ামতরাজির প্রতি কৃতজ্ঞতা এবং তাঁর শাহী দরবারে বান্দার নানাবিদ চাহিদা পূরণের মিনতি জানানোর মাধ্যম। ঈমানের পর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ইবাদত নামাজ। তাই ঈমানের পরে, সকল ইবাদতের ঊর্ধ্বে তার স্থান। যে নামাজ কায়েম করল, সে দ্বীন প্রতিষ্ঠিত করল। আর যে নামাজ ধ্বংস করল, সে দ্বীন ধ্বংস করল। অর্থাৎ যার নামাজ ঠিক তার দ্বীন ঠিক। আর যার নামাজ বরবাদ তার দ্বীন বরবাদ। অতএব, যে ব্যক্তির নামাজ যত সুন্দর হবে, তার দুনিয়া-আখেরাতের জিন্দেগীও তত সুন্দর ও সফল হবে।

তবে নামাজের এ অসীম গুরুত্বের পাশাপাশি শরীয়তের আরেকটি মৌলিক দৃষ্টিভঙ্গির প্রতি লক্ষ্য রাখা আবশ্যক। আর তা হচ্ছে, সকল ক্ষেত্রে সহজীকরণ। আল্লাহ পাক সাধ্যাতীত নির্দেশ দেন না, বরং যা সহজ তাই আল্লাহর নিকট প্রিয়।

ইরশাদ হয়েছে, لَا يُكَلِّفُ اللَّهُ نَفْسًا إِلَّا وُسْعَهَا অর্থাৎ- “আল্লাহতাআলা সাধ্যের বাহিরে কোন দায়িত্ব কারও উপর চাপিয়ে দেন না”। -সূরা বাকারা : ২৮৬

ইরশাদ হয়েছে,  يُرِيدُ اللَّهُ بِكُمُ الْيُسْرَ وَلَا يُرِيدُ بِكُمُ الْعُسْرَ অর্থাৎ “আল্লাহ তোমাদের জন্য সহজ করতে চান, তোমাদের জন্য  কঠিন করতে চান না”। -সূরা বাকারা : ১৮৫

অতএব, অবহেলা প্রদর্শন না করে নামাজের প্রতি পূর্ণ মর্যাদা ও গুরুত্ব উপলব্ধি করা যেমন আবশ্যক, তার সাথে নামাজকে সাধ্যাতীত না করে, বরং সহজ করে দেখাও আবশ্যক। এ দুয়ের মাঝেই রয়েছে সীরাতে মুস্তাকীম। এই মৌলিক আলোচনার পর চেয়ারে বসে নামাজ আদায়ের কয়েকটি বিধান নিচে তুলে ধরা হলো


https://www.banglanews24.com/islam/news/bd/401819.details

0 টি পছন্দ
করেছেন (378 পয়েন্ট)
  1. এ সম্পর্কে নিম্নে তিনটি মাসালা দেয়া হল: 

  1. মাসআলাঃ চেয়ারের পেছনের পায়া দ্বারা কাতার সোজা করবে সামনের পায়া দারা নয়।এবং চেয়ারে উপবিষ্ট মুসল্লী অন্যদের কাধের সাথেতার কাধ মিলিয়ে কাতার সোজা করবে।
  2. মাসআলাঃ ইশারায় সিজাদার সময় সামনে কোন টেবিল, বালিশ বা অন্য কিছু রেখে তাতে সিজদা করবে না। বরং শুধু ইশারাই করবে।
  3. عن جابر بن عبد الله رضي الله عنه أن رسول الله صلى الله عليه و سلم عاد مريضا فرآه يصلي على وسادة فأخذها فرمى بها فأخذ عودا ليصلي عليه فأخذه فرمى به وقال صل على الأرض إن استطعت وإلا فأوم إيماء واجعل سجودك أخفض من ركوعك অর্থঃ জাবের ইবনে আব্দুল্লাহ (রাঃ) থেকে বর্নিত, রাসুলে কারীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম একজন রোগী দেখতে গেলেন। তিনি তাকে একটি বালিশের উপর সিজদা করতে দেখলেন। তিনি তা (বালিশ) নিয়ে সরিয়ে রাখলেন। অতঃপর লোকটি একটি কাঠের টুকরা নিল তার উপর সিজদার জন্য। রাসুলে কারীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তা নিয়ে নিক্ষেপ করলেন। এবং তিনি বললেন,তুমি সক্ষম হলে জমিনের উপর সিজদাহ করবে অন্যথায় ইশারাহ করবে।এবং তোমার সিজদাহ রুকু থেকে বেশি ঝুকিয়ে করবে। (সুনানে বাইহাক্বী হা: ৩৪৮৪)
  4. মাসআলাঃ ইশারায় রুকু সিজদার সময় সিজদাতে রুকুর চেয়ে বেশি ঝুকবে। (সুনানে বাইহাক্বী হা: ৩৪৮৪)
    و الله تعالي اعلم و علمه اتم و احكم.

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

3 টি উত্তর
05 নভেম্বর "পবিত্রতা ও সালাত" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Md. Siyam Hossen (5,117 পয়েন্ট)
2 টি উত্তর
1 উত্তর

353,732 টি প্রশ্ন

447,835 টি উত্তর

140,253 টি মন্তব্য

188,385 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...