বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
25 জন দেখেছেন
"হাদিস" বিভাগে করেছেন অজ্ঞাতকুলশীল
ঐ সময়ে হাততালি দিলে পাপ হবে কি? অার হাতের তালুতে তালি না দিয়ে হাতের উপরপৃষ্ঠে বাম হাতের উপর ডান হাত দিয়ে যদি তালি দেওয়া হয় তাহলেও কি পাপ হবে?

2 উত্তর

0 টি পছন্দ
করেছেন (1,057 পয়েন্ট)
সম্পাদিত করেছেন
দেখুন ভাই, হাত তালি দেওয়া পাপ কাজ এই কথা টা আমিও অনেকের মুখেই শুনেছি।। তবে শক্তপোক্ত ভাবে কেউ দলিল দিয়ে বলেন নি।। আপনি হয়তো ড. জাকির নায়েকের লেকচার শুনে থাকবেন আর না শুনে থাকলে শুনে নিবেন।। তিনি যখন কোনো প্রশ্নের উত্তর দেওয়া শেষ করেন, তখন শুনবেন সেই সেমিনারে উপস্থিত সবাই হাত তালি দেয়।। এখন ভাবুন তো ভাই, হাত তালি দেওয়া যদি সত্যি পাপ বা অন্যায় বা ধর্ম বিরোধী কাজ হয় তবে জাকির নায়েক তো কত কিছু জানেন তবে তিনি কি এটা জানেন না, তিনি কেন বাধা করেন না।। তাই আমি মনে করি এটা কোনো পাপ কাজ নয়।। আশা করি বুঝতে পেরেছেন ভাই?
0 টি পছন্দ
করেছেন (378 পয়েন্ট)
  • তালি দেওয়া যে সর্বক্ষেত্রে হারাম তা নয়। তার ক্ষেত্র বিশেষে হুকুম ভিন্ন হয়।  
  • নিম্নে তার বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।:- 
  • ❶ তালি দেয়া ইবাদত : আর তা শুধু মহিলাদের জন্য নামাযের মাঝে তা সহীহ বুখারীর বর্ণনার মাঝে এসেছে- 

  • ✔ অর্থাৎ : হযরত সাহল ইবনে সা’দ আসসায়ীদি (রা.) থেকে বর্ণিত নিশ্চয় রাসূল (সা.) বলেছেন………… 

  • «مَا لِي رَأَيْتُكُمْ أَكْثَرْتُمُ التَّصْفِيقَ، مَنْ رَابَهُ شَيْءٌ فِي صَلاَتِهِ، فَلْيُسَبِّحْ فَإِنَّهُ إِذَا سَبَّحَ التُفِتَ إِلَيْهِ، وَإِنَّمَا التَّصْفِيقُ لِلنِّسَاءِ» 

  • তোমাদের কি হয়েছে? আমি নামাযের মাঝে তোমাদেরকে অধিক তালি দিতে দেখছি? (জেনে রাখ) নামাযের মাঝে যদি তোমাদের কোন সমস্যা সামনে আসে তাহলে তোমরা তাসবীহ পড় অথাৎ সুবহানাল্লাহ ইত্যাদি আর মহিলাগণ তালি দিবে । (নামাযের মাঝে মহিলাদের তালির নিয়মটা হবে একটু ভিন্ন আর তা হলো ডান হাতকে বাম হাতের পিঠের উপর মারবে। বুখারী-1/137, হাদীস-684 । 


  •  ❷ তালি দেয়া বৈধ না,আর তা হলো যখন এবাদত মনে করে তালি দেয়া হয় অথবা ঠ্রাট্র ও হটকারীতা ইত্যাদি বশতঃ হয়। কেননা এই প্রকারটি জাহেলী যুগ ও মুশরীকদের স্বভাব। দেখুন, মহান আল্লাহ তায়ালা এই সম্পর্কে পবিত্র কোরআনের মাঝে নিন্দা জানিয়ে বলেন- 

  • ❖ { وَمَا كَانَ صَلَاتُهُمْ عِنْدَ الْبَيْتِ إِلَّا مُكَاءً وَتَصْدِيَةً فَذُوقُوا الْعَذَابَ بِمَا كُنْتُمْ تَكْفُرُونَ } [الأنفال: 35] 

  • ✔ অর্থাৎ কা’বার নিকট তাদের নামায বলতে শিস দেয়া আর তালি বাজানো্ ছাড়া অন্য কোন কিছুই ছিল না। অতএব, এবার নিজেদের কৃত কুফরীর আযাবের স্বাদ গ্রহণ কর। (সূরা আনফাল-35)। 

  • ❸ তালি দেয়া মাকরুহ, আর তা হলো উল্লেখিত প্রকারগুলো ব্যতীত কোন মাহফীল ও সামাবেশ ইত্যাদির মাঝে আনন্দ ও উৎসাহ প্রদান এর জন্য তালি দেয়া, কেননা তালি দেয়া মহিলাদের জন্য নির্ধারিত বলে উপরে প্রথম প্রকারের মাঝে উল্লেখ হয়েছে, আর রাসূল (সা.) পুরুষদেরকে মহিলাদের সদৃশ্য কাজ থেকে নিষেধ করেছেন। দেখুন- 

  • ✔ হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে আব্বাস (রা.) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন নিশ্চয় রাসূল (সা.) অভিশাপ দিয়েছেন, যেই পুরুষরা মহিলাদের সাদৃশ্য অবলম্বন করে এবং যে মহিলারাও পুরুষদের সদৃশ্য অবলম্বন করে। বুখারী-7/159, হাদীস-5885 । 

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

2 টি উত্তর
03 নভেম্বর "ধর্ম ও আধ্যাত্মিক বিশ্বাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন afia islam (255 পয়েন্ট)

353,713 টি প্রশ্ন

447,819 টি উত্তর

140,242 টি মন্তব্য

188,383 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...