বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
161 জন দেখেছেন
"প্রেম-ভালোবাসা" বিভাগে করেছেন (32 পয়েন্ট)
পূনঃরায় খোলা করেছেন
জীবনের প্রথম একজন কে ভালোবেসেছি আজ দুই বছর ধরে একতরফা ভালোবাসি দুই বছর ধরে তার জন্য কান্না করে আসছি এখন যদি শুনি তার বিয়ে ঠিক হয়ে গেছে তখন আমার অবস্থা কি হবে বুঝতেছেন তো আমি তখন নিজেকে কিভাবে সামলাবো

5 উত্তর

+3 টি পছন্দ
করেছেন (13,708 পয়েন্ট)
নির্বাচিত করেছেন
 
সর্বোত্তম উত্তর

বাহ খুব ভালো লাগলো আপনার কথা গুলো শুনে যে আপনি একটি মেয়েকে অনেক ভালোবাসেন প্রায় দুই বছর হতে। আর এই দুই বছর প্রেমের পর এখন যদি তার বিয়ে ঠিক হয় তাহলে আপনার মনের অনুভুতি কি সেটাই জানতে চাচ্ছেন  তো বা আপনি কি করবেন ভাবছেন বা আপনার কি করা উচিৎ তাই না।

ভাইরে আজ থেকে   দুই বছর   আগে বা প্রায় দুই বছর যাবত একজন কে আপনি ভালোবাসেন বা তার সাথে প্রেম করে আসতেছেন। আর আজ সে আপনাকে ছেড়ে অন্যের বুকে যাবে। 

আচ্ছা যদি সে আপনার কথা না ভেবেই আপনাকে ছেড়ে  যায় তাহলে এতো দিন অর্থাৎ দুই বছর এর ভালোবাসা আপনাদের কি রকম ছিলো তা এখন প্রকাশ পাচ্ছে। 

ভেবে দেখুন আপনি তার জন্য কান্না করেছেন কিন্তু যদি সে আপনাকে সত্যিই ভালোবাসতো তাহলে আপনাকে ছেড়ে অন্যের সাথে বিয়ের মত দিতো না  । আর যদি আপনি তাকে সত্যিই ভালোবাসতেন তাহলে তাকে অন্য যায়গায় বিয়ে হতেও দিতেন না। 

যদি তাকে আটকাতেই না পারেন তাহলে ভালোবেসেছিলেন কেনো। প্রেম করা কি আপনাদের অভিনয় ছিলো।  

আপনি আসেন তাকে কাছে টেনে নিন তাকে বিয়ে করার প্রস্তাব দিন মেয়েটির বাসায়।  ভাবছেন নিজেই প্রতিষ্ঠিত হতে পারিনি বিয়ে করে কি করবো তাই না। 

তাহলে ভালোই বা বেসেছিলেন কেনো। 

ভাই একটা কথা মনে রাখবেন মেয়েদের চাইলেও পরিবার থেকে বিয়ে দিতে পারে কিন্তু আপনি আমি বা আমরা ছেলেরা চাইলেও বিয়ে করতে পারি না কেনো না আমাদের নিজেস্ব জোজ্ঞতা মোতাবেক কর্ম থাকতে হয়।  

এখন আপনার প্রশ্নের উত্তরে আসা যাক ↓↓

আপনি বলছেন তার বিয়ের কথা শুনে কিভাবে নিজেকে সামলাবেন → আপনাকে পরিস্কার ভাবে বলছি বুঝে নিবেন।  আজকে আপনার ভালোবাসার মানুষ্টির বিয়ে ঠিক হয়েছে অন্য যায়গায় ভালো কথা তবে তাকে আপনি জিজ্ঞেস করুন যে সে আপনাকে ছেড়ে অন্যের বুকে যাবে কি না। বা আপনি তাকে বিয়ে করে আপনার ঘড়ে তুলবেন সেটি বলেন

যদি  সে আপনার কথা না শুনে বা তার পরিবারের কথা অনুযায়ী বিয়ে করে তাহলে আপনি বুঝে নিন সে কভুদিনো আপনাকে ভালোবাসে নি। সে আপনার কখনই মনের মত একজন সঙ্গী হতে পারে নি। এটা ভেবে নিজেকে কষ্ট দেওয়া মানেই নিজেই নিজের কাছে হেরে যাওয়া। তাই অপেক্ষা করুন হয়তো এমন একজন আছে যে কিনা আপনাকে অনেক অনেক ভালোবাসবে যা আপনার কল্পনার বাহিরে।

যদি সে আপনার কথায় রাজি হয়ে আপনার সাথে বিয়ে করতে রাজি হয় তাহলে তার ফ্যামিলিতে প্রস্তাব পাঠান। যদি তার ফ্যামিলি আপনার সাথে বিয়ে দিতে রাজি না হয় তাহলে আপনার ফ্যামিলি  এর সাথে  বোঝা পরামর্শ করুন নিজের বাবা মা, ভাবিদের মাঝে সেয়ার করুন। তারাই ফায়সালা করবে যদি আপনারা দুই জন রাজি থাকেন

ভাবছেন টাকা নেই বিয়ে করবো না।  তাহলে তাকে ছেড়ে দিন যদি সে আপনার থাকে তাহলে ফিরে আসবে তা হলে নিজে প্রতিষ্ঠিত হোন তার পর বিয়ে করবেন কোন এক মায়াবতী মেয়েকে যার চোখের দিকে তাকালে সব কষ্ট চলে যায়।

ভাই আমার কথা গুলো ভেবে দেখুন কাজে আসবে। 

+1 টি পছন্দ
করেছেন (17,359 পয়েন্ট)
সৃষ্টিকর্তা যার সাথে আপনার জুটি লিখে রেখেছেন, তার সাথেই আপনার বিয়ে হবে। খারাপ লাগাটা স্বাভাবিক, কিন্তু ভেঙে পড়বেন না। কাজের মাঝে নিজেকে বিজি রাখার চেষ্টা করুন।।আপনি আপনার ভবিষ্যৎ নিয়ে ভাবুন,পরিবারের আপনার প্রতি প্রত্যাশার কথা চিন্তা করুন।আপনার ভালবাসার মানুষটির অনাগত লাইফের প্রতি শুভ কামনা করে তাকে মন থেকে ঝেড়ে ফেলুন। নামাজ পড়ুন এবং নিজেরর মনকে স্থির করুন।
0 টি পছন্দ
করেছেন (3,271 পয়েন্ট)
আপনার মনকে শান্ত রাখতে হবে। উত্তেজনা/ রাগের কারনে এমন কোন কাজ করবেন না। যা আপনার জীবনকে নষ্ট করে দিবে। তাকে ভুলে যাওয়ার চেষ্টা করবেন। আপনি ক্যারিয়ার/ আপনার ভবিষ্যত নিয়ে চিন্তা করেন। মনে রাখবেন আল্লাহ যা করে তা ভালোর জন্যই করে। 
0 টি পছন্দ
করেছেন (5,216 পয়েন্ট)
আপনি প্রথমত নিজের মনকে শান্ত করুন। কারণ অনেক সময় একরকম হয়ে থাকে। এক্ষেত্রে আপনার খারাপ লাগা স্বাভাবিক। পরিবারের চাপ ও সামাজিক কারণে অনেক সময় এরকম হয়ে থাকে। যেকোন প্রতিযোগিতায় সবাই জয়ী হয় না, তেমনি সব সম্পর্কের পরিণতি একরকম হয়ে না। আপনি নিজেকে শান্ত রাখার চেষ্টা করুন।
আপনি তার সাথে সম্পৃক্ত স্মৃতি ভুলে যাওয়ার চেষ্টা করুন, কারণ এটি আপনার জন্যে শ্রেয়। আপনি তাকে ভুলে যান। তার স্মৃতি এড়িয়ে চলুন। নিজের পরিবারের সঙ্গে থাকুন। বন্ধুদের সাথে মেলামেশা করুন।
কাজে ব্যস্ত থাকলে আপনি তার কথা দ্রুত ভুলতে পারবেন। আপনি আপনার ভবিষ্যৎ নিয়ে চিন্তা করুন।
আপনি জীবনের লক্ষ্য অনুসারে কাজ করুন। তার সম্পর্ক্র যেকোন কথাবার্তা এড়িয়ে চলুন। নিজেকে নতুনভাবে প্রস্তুত করুন। ধর্ম অনুসারে চলুন এবং ধর্মীয় কাজ করুন। জীবনকে নতুনভাবে সাজিয়ে নিন।
0 টি পছন্দ
করেছেন (167 পয়েন্ট)
এগুলো মেনে দেখুন সব ঠিক হয়ে যাবে ১। আল্লাহকে ভয় করবেন ২। নামাজ পড়বেন ৩। ৪। সৎ কাজে আদেশ অসৎ কাজে নিষেধ করবেন ৫। মা বাবার কথা মান্য করবেন ৬। কুরআন তেলওয়াত করবেন ৭। সত্য কথা বলবেন ৮।ছোট বড় সবাইকে সালাম দেবেন ৯। বড়দের সম্মান করবেন ১০। অহংকার করবেননা এই উপদেশ গুলো আপনার জীবণে থাকলে বলব আপনি আসলে প্রকৃত সুখি♥♥

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

313,043 টি প্রশ্ন

402,645 টি উত্তর

123,695 টি মন্তব্য

173,382 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...